ব্রেকিং নিউজ

প্রতিবার ‘আইস’ নিতে খরচ ১২ হাজার টাকা

news-details
ক্রাইম নিউজ

আমাদের প্রতিবেদক :

রাজধানীর একাধিক স্থানে অভিযান চালিয়ে মালয়েশিয়া থেকে আনা মেথামফিটামিন মাদক বা ‘আইস’ উদ্ধার করা হয়েছে। একইসঙ্গে ছয়জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।  

ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের রমনা বিভাগ বুধবার গেণ্ডারিয়া, গুলশান, বনানী ও বসুন্ধরা এলাকায় এ সংক্রান্ত অভিযান চালায়। গ্রেফতারকৃতরা হলো - চন্দন রায়, সিরাজ, অভি, জুয়েল, রুবায়েদ ও ক্যানি। তাদের কাছ থেকে ৬০০ গ্রাম ‘আইস’ উদ্ধার করা হয়েছে। 

বৃহস্পতিবার এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানানো হয়। ডিএমপি মিডিয়া সেন্টারে ওই সংবাদ সম্মেলনে ডিবির অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার এ কে এম হাফিজ আক্তার বক্তব্য দেন। 

তিনি বলেন, মেথামফিটামিন জাতীয় মাদক ‘আইস’ অস্ট্রেলিয়া, মালয়েশিয়া, সিঙ্গাপুর ও চীনে বেশি ব্যবহার হয়। সেবু, ক্রিস্টাল মেথ কিংবা ডি মেথ নামেও এ মাদক পরিচিত। দীর্ঘদিন এটি ব্যবহার করলে হৃদরোগ, শরীরের বিভিন্ন অঙ্গের ক্ষতি এবং ব্রেইন স্ট্রেকের ঝুঁকি বাড়ে।

গোয়েন্দা কর্মকর্তা হাফিজ আক্তার বলেন, ১০ গ্রাম আইসের দাম ১ লাখ টাকা। এটি স্নায়ুকে উত্তেজিত করে বহুগুণ। ধূমপানের মাধ্যমে, ইনজেক্ট করে বা ট্যাবলেট হিসেবে এটা নেয়া যায়। 

বিদেশ থেকে উচ্চবিত্তদের জন্য এই ড্রাগ আনা হয়েছে। প্রতিবার আইস নিতে হলে ১০ থেকে ১২ হাজার টাকা খরচ হয়। 

গ্রেফতারকৃতদের কাছ থেকে প্রাপ্ত তথ্যের বরাত দিয়ে তিনি বলেন, উচ্চবিত্ত পরিবারের সন্তানদের টার্গেট করে তারা এদেশের বাজার ধরতে আইস আমদানি করেছে। 

চন্দন রায় আইসের মূল ডিলার। সে প্রবাসী আত্মীয় শংকর বিশ্বাসের মাধ্যমে বিমানে করে এগুলো এনে ঢাকার খুচরা বিক্রেতাদের মাধ্যমে বিক্রি করে। 

গ্রেফতারকৃতদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে বলে এই গোয়েন্দা কর্মকর্তা জানান।

You can share this post on
Facebook

0 মন্তব্য

মন্তব্য করতে লগইন করুন অথবা নিবন্ধন করুন ।