ব্রেকিং নিউজ

পাকিস্তান সিরিজই শেষ চিগুম্বুরার

news-details
খেলাধুলা

স্পোর্টস ডেস্ক

চোটের সঙ্গে লড়াইয়ে হার মানলেন এল্টন চিগুম্বুরা। ইনজুরির কারণে আগেই ছেড়েছিলেন বোলিং। খেলে যাচ্ছিলেন ব্যাটসম্যান হিসেবে। সে যাত্রাও থামিয়ে দেয়ার ঘোষণা দিলেন জিম্বাবুয়ের সাবেক অধিনায়ক। চলমান পাকিস্তানের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজ শেষেই ক্রিকেটকে বিদায় জানাবেন ৩৪ বছর বয়সী এই অলরাউন্ডার।

চিগুম্বুরা তার ক্যারিয়ারে সবচেয়ে বেশি আলো ছড়িয়েছেন ওয়ানডেতে। ছিলেন কার্যকর পেস বোলিং অলরাউন্ডার। ফ্লাওয়ারদের দুই ভাই অ্যান্ডি ও গ্র্যান্টের পর জিম্বাবুয়ের হয়ে সবেচেয়ে বেশি ২১০ ওয়ানডে খেলেছেন চিগুম্বুরা। একদিনের ক্রিকেটে করেছেন চার হাজার ২৮৯ রান।

একমাত্র গ্র্যান্ট ফ্লাওয়ার ছাড়া জিম্বাবুয়ের ক্রিকেটারদের মধ্যে চিগুম্বুরারই রয়েছে চার হাজার রান ও ১০০ উইকেটের ডাবল। পাকিস্তান সিরিজের আগে খেলা ৫৪ টি-টোয়েন্টিতে করেছেন ৮৫২ রান।

২০০৪ সালে জিম্বাবুয়ে ক্রিকেটের টালমাটাল সময়ে অভিষেক। ধারাবাহিক পারফরমেন্সে দ্রুতই জাতীয় দলে জায়গা পাকা করে নেন। বাংলাদেশের ঘরোয়া ক্রিকেটেও খেলেছেন লম্বা সময়। ২০১৩ সালে ঢাকা প্রিমিয়ার ক্রিকেটে গড়েন দারুণ কীর্তি। ঢাকা আবাহনীর বিপক্ষে এক ওভারে ৩৯ রান নিয়েছিলেন শেখ জামাল ধানমন্ডির চিগুম্বুরা। সেসময় ওটাই ছিল লিস্ট ‘এ’তে এক ওভারে সর্বোচ্চ রানের রেকর্ড।

দুই দফায় নেতৃত্ব দিয়েছেন জিম্বাবুয়েকে। ২০১০ সালের মে মাসে প্রথমবারের মতো অধিনায়কের ভার পান। নেতৃত্ব দিয়েছেন ২০১১ ওয়ানডে বিশ্বকাপে। বাজে পারফরম্যান্সের কারণে পরে সরে যেতে হয়। ২০১৪ সালে আবারো পান নেতৃত্বের ভার। ২০১৬ পর্যন্ত ছিলেন সংক্ষিপ্ত সংস্করণে জিম্বাবুয়ের অধিনায়ক। ১৪টি টেস্ট খেলা চিগুম্বুরা সর্বশেষ টেস্ট খেলেছেন বাংলাদেশের বিপক্ষে, ২০১৪ সালে চট্টগ্রামে। ২০১৮ সালে সর্বশেষ ওয়ানডেও খেলেছেন বাংলাদেশের বিপক্ষেই।

বিপিএলের বাইরে খেলেছেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের সিপিএল, পাকিস্তানের পিএসএলে। ইংল্যান্ডের কাউন্টি ক্রিকেটে খেলেছেন নর্থ্যাম্পটনশায়ারের হয়ে।

You can share this post on
Facebook

0 মন্তব্য

মন্তব্য করতে লগইন করুন অথবা নিবন্ধন করুন ।